পর্যটন বাংলাদেশ - বাংলাদেশ ভ্রমণ - বাংলাদেশের দর্শনীয় স্থান


তিতা খাঁ জামে মসজিদ
লক্ষ্মীপুর >>  লক্ষ্মীপুর সদর

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা বাজারের কাছে এই মসজিদটি দেখতে পাবেন। ধারনা করা হয়, প্রায় ৩০০ বছরের পুরাতন মসজিদ এটি। প্রাচীন এই মসজিদটির স্থাপত্য শৈলী সহজেই মুগ্ধ করবে আপনাকে। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

ঘাগরা লস্কর বাড়ি মসজিদ
শেরপুর >>  ঝিনাইগাতী

১২২৮ হিজরিতে নির্মিত এই মসজিদটি শেরপুর সদর থেকে প্রায় ১৪ কিলোমিটার দূরে ঝিনাইগাতি উপজেলার কোয়ারি রোডে অবস্থিত। মসজিদটি বর্গাকারে নির্মিত এবং ১০ গম্বুজ বিশিষ্ট। প্রবেশের জন্য পূর্বদিকে একটি দরজা রয়েছে। মসজিদটিতে ফুলের কারুকার্য মুগ্ধ করবে সকলকেই। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

ঘাগরা খান বাড়ি মসজিদ/ ঘাগরা জামে মসজিদ
শেরপুর >>  ঝিনাইগাতী

আনুমানিক পনের শতাব্দিতে নির্মিত এই মসজিদটি। মসজিদটি বর্গাকারে নির্মিত এবং ১ গম্বুজ বিশিষ্ট। প্রবেশের জন্য পূর্বদিকে একটি দরজা রয়েছে। মসজিদটিতে ফুলের কারুকার্য মুগ্ধ করবে সকলকেই। মসজিদের চার কোনে ৪টি গোলাকার বুরুজ রয়েছে। এগুলোর প্রত্যেকটি উপর আবার একটি করে ছোট গম্বুজ রয়েছে। প্রবেশ দ্বারের দু'পাশে সরু করে দুটি স্তম্ভ উপরের দিকে উঠে গেছে। এই দুটি স্তম্ভের উপর ছোট আকৃতির গম্বুজ দেখতে পাওয়া যাবে। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

দরবেশ জরিপ শাহের মাজার
শেরপুর >>  শ্রীবদী

শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলার অন্যতম পবিত্রতম স্থান এই দরবেশ জরিপ শাহের মাজার। মাজারটি গড়জরিপা নামের একটি ইউনিয়নে অবস্থিত। হযরত জরিপ শাহ্‌ (রহ) একজন ধর্ম প্রচারক ছিলেন। হযরত শাহ্‌ জালাল ইয়ামেন (রহ) এর উপমহাদেশে আগমনের সময় ৩১৩ জন সফরসঙ্গী এর মধ্যে হযরত জরিপ শাহ্‌ (রহ) ছিলেন একজন। এই এলাকায় ধর্ম প্রচার করতেন তিনি। তিনি এখানে একটি খালও খনন করেছিলেন। এই ধর্মপ্রচারকের নামানুসারেই এলাকার নাম হয়েছে গড়জরিপা। হযরত জরিপ শাহের মৃত্যুর পর এখানেই তাকে সমাধিস্থ করা হয়েছিল। তার সমাধিস্থলটি দরবেশ জরিপ শাহের মাজার নামে পরিচিত। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

বারো দুয়ারী মসজিদ
শেরপুর >>  শ্রীবদী

শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী উপজেলার গড়জরিপা ইউনিয়নে বারো দুয়ারী মসজিদটি রয়েছে। মসজিদটিতে প্রবেশ পথ আছে ১২টি। এ কারনে এর নামকরন করা হয়েছে বারো দুয়ারী মসজিদ। প্রবেশপথ গুলোর মধ্যে পূর্ব দিকে ৯টি, দক্ষিণ দিকে ২ টি এবং উত্তর দিকে ১ টি প্রবেশপথ আছে।এছাড়াও ৩টি জানালা দেখতে পাওয়া যাবে। ইট দ্বারা নির্মিত এই মসজিদটির দেয়ালের বিভিন্ন নকশা মনোমুগ্ধকর। মসজিদটি তিন গম্বুজ বিশিষ্ট। হযরত জরিপ শাহ্‌ নামক এক ধর্ম প্রচারক এই মসজিদটি নির্মাণ করেছিলেন বলে মনে করা হয়। হযরত জরিপ শাহ্‌ এর সমাধিস্থলও এই গড়জরিপায় রয়েছে। গড়জরিপার এই বারো দুয়ারী মসজিদটি মূলত মূল মসজিদের অনুকরনে নির্মিত। মূল মসজিদটি মাটির নিচেই রয়ে গেছে। মসজিদের নির্মাণ কৌশল পর্যটকদের মুগ্ধ করে। ধারনা করা হয়, মূল মসজিদটি তের কিংবা চৌদ্দ শতাব্দীর কোন এক সময় নির্মিত। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

গাজীর দরগা
শেরপুর >>  শ্রীবদী

শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার গাজীর দরগাহটি প্রাচীন একটি প্রত্নসম্পদ। কিংবদন্তী বেশ কয়েকটি কাহিনী রয়েছে এই দরগাটিকে কেন্দ্র করে। ধারনা করা হয়, দরগাটি মোঘল আমলে নির্মিত। দরগাটি একটি অসমাপ্ত স্থাপত্য নিদর্শন। মোঘল আমলেই এই স্থাপত্য শিল্প দেখতে চাইলে আপনাকে শেরপুর জেলার নকলা উপজালার রুনিগাও নামক একটি গ্রামের দরগা বাজারে যেতে হবে। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

মাই সাহেবা মসজিদ
শেরপুর >>  শেরপুর সদর

শেরপুর সদর উপজেলায় অবস্থিত এই মাই সাহেবা মসজিদটি ১৮৬১ সালে নির্মিত হয়। তবে বর্তমানে যে মসজিদটি রয়েছে তা পুনঃনির্মিত একটি মসজিদ। আধুনিক ভাবধারায় নির্মিত মসজিদটির দুটি সুউচ্চ মিনার দূর হতে সহজেই চোখে পড়ে। শেরপুর সরকারি কলেজের নিকটেই রয়েছে এই মসজিদটি। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

তেতুলিয়া জামে মসজিদ
সাতক্ষীরা >>  তালা

সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার তেতুলিয়ায় কবি সিকদার আবু জাফর সড়কে প্রাচীন এই মসজিদটি রয়েছে। পাশেই রয়েছে বিশালাকৃতির প্রাচীন একটি দিঘি। মোঘল আমলের প্রথম দিকে এই মসজিদটি নির্মিত হয় বলে মনে করা হয়। মসজিদটির নির্মাণ কৌশল পর্যটকদের মুগ্ধ করে। প্রায় ৪৩ শতাংশ জমির উপর নির্মিত এই মসজিদটির প্রাধান দরজায় ফারসি ভাষায় খোদিত আছে অনেক তথ্য। মসজিদটির ভেতরের দেয়ালে খচিত আছে কোরআনের বিভিন্ন আয়াত। মসজিদটির মেঝে তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে শ্বেত পাথর। কাজী সালামতুল্লাহ নামের এক ব্যক্তি এই মসজিদটি নির্মাণ করেন বলে জানা যায়। বিশালাকৃতির এই মসজিদটি ৬ গম্বুজ বিশিষ্ট। রয়েছে ১৮টি মিনার। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

টেঙ্গা মসজিদ
সাতক্ষীরা >>  শ্যামনগর

ঈশ্বরীপুরে এই টেঙ্গা মসজিদটি রয়েছে। এটি একটি ৫ গম্বুজ মসজিদ। কেন্দ্রীয় গম্বুজ টি অপেক্ষাকৃত বড়। মসজিদটির পূর্ব দেয়ালে ৫টি এবং উত্তর ও দক্ষিন দেয়ালে ১টি করে প্রবেশ পথ রয়েছে। মসজিদের অভ্যন্তরে দেখা যাবে ৫ টি মিহরাব। মসজিদের দেয়ালগুলোর প্রশস্ততা প্রায় ৭ফুট। সপ্তদশ শতাব্দিতে এই মসজিদটি নির্মাণ করা হয় বলে অনুমান করা হয়। মসজিদটির নিকট মোঘল আমলের একটি হাম্মামখানা ছিল। ছাড়াও উত্তর পাশে অষ্টকোনাকার এক গম্বুজ বিশিষ্ট একটি ইমারত রয়েছে, ইমারতটি বিবির আস্তানা নামে পরিচিত। বর্তমানে মসজিদ ও বিবির আস্তানা দুটিই সংস্কারকৃত। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

প্রবাজপুর শাহী জামে মসজিদ
সাতক্ষীরা >>  কালিগঞ্জ

সাতক্ষীরা জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার প্রবাজপুর গ্রামে রয়েছে প্রাচীন একটি মসজিদ। এটি প্রবাজপুর শাহী জামে মসজিদ নামে পরিচিত। মসজিদটি মোঘল আমলে মোঘল সম্রাট আওরঙ্গজেবের শাসনামলে ১৬৯৩ সালে নির্মিত হয়। মোঘল সুবেদার পরবাজ খাঁ মসজিদটি নির্মাণ করেন। এটি একটি এক গম্বুজ বিশিষ্ট মসজিদ। ...... সম্পূর্ণ অংশ পড়ুন

First  Previous  1  2  3  4  5  6  7  8  9  10  11  12  13  14  15  16  17  18  19  20  Next  Last  



পর্যটন বাংলাদেশ - বাংলাদেশ ভ্রমণ - বাংলাদেশের দর্শনীয় স্থান